চট্টগ্রামবুধবার , ৩ এপ্রিল ২০২৪
  1. অগ্নিকাণ্ড
  2. অপরাধ
  3. অপহরণ
  4. অর্থনীতি
  5. আইন বিচার
  6. আতঙ্ক
  7. আত্মহত্যা
  8. আন্তর্জাতিক
  9. আবহাওয়া বার্তা
  10. ঈদুল আযহা উদযাপন
  11. ঈদুল ফিতর উদযাপন
  12. উন্নয়ন
  13. কৃষি
  14. ক্যাম্পাস
  15. খেলাধুলা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ছাগল চোর বলায় ক্ষুব্ধ হয়ে শিশু রোমানকে স্বাসরোধে হ’ত্যা করে আশিক

deshbarta news
এপ্রিল ৩, ২০২৪ ৬:২৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ছাগল চোর বলায় ক্ষুব্ধ হয়ে শিশু রোমানকে স্বাসরোধে হ’ত্যা করে আশিক

রুমন হোসেন জিলহজ্ব,
লালমনিরহাট জেলা বিশেষ প্রতিনিধি:

আশিক (১৪) এলাকার একজনের ছাগল চুরি করে সেটি স্থানীয় একটি হাটে বিক্রি করে দেয় আশিক। কিন্তু পরবর্তীতে এলাকায় চুরির ঘটনাটি জানাজানি হলে স্থানীয় এক শালিস বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ওই বৈঠকে চুরির দায়ে অভিযুক্ত আশিককে দায়ী করে জরিমানা করা হয়। এরপর থেকেই প্রতিবেশী বাড়ির এক শিশু আশিককে দেখলেই ছাগল চোর, ছাগল চোর বলে ডাকতে থাকে। এতে চরমভাবে অপমানিত হত আশিক। সম্প্রতি আশিকের বাড়ীতে আত্নীয় স্বজন বেড়াতে এলে সেখানেও রোমান মিয়া আশিককে ছাগল চোর বলে।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রোমানকে উচিত শিক্ষা দিতে হত্যার পরিকল্পনা আটে। সেই মোতাবেক রোমান (৬) কে স্বাসরোধ করে হত্যা করে তামাক ক্ষেতে লুকিয়ে রাখে আশিক। অবশেষে শেষ রক্ষা আর হয়নি আশিকের। শেষ পর্যন্ত পুলিশের হাতে গ্রেফতার হতেই হলো আশিককে।

মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) বিকেল সাড়ে তিনটায় লালমনিরহাট পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সাংবাদ ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে এভাবেই ঘটনার আদ্যপান্ত তুলে ধরেন লালমনিরহাট পুলিশ সুপার মোঃ সাইফুল ইসলাম। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তা নিয়ে খুব দ্রুততম সময়ের মধ্যে এই হত্যাকান্ডের রহস্য উন্মোচন করায় তার টিমের সদস্যদের ধন্যবাদ জানান। তিনি আরো বলেন, আজ বিজ্ঞ আদালতে ১৬৪ ধারায় দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছে আশিক।

আদালত কিশোর আশিককে যশোর সংশোধনাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন বলে সংবাদ ব্রিফিংয়ে জানান তিনি।

গত শনিবার (৩০মার্চ) বিকেলে লালমনিরহাট জেলার আদিতমারী উপজেলার ভাদাই ইউনিয়নের খোলাহাটি সেতুবাজার এলাকা থেকে মরদেহ রোমানের উদ্ধার করা হয়। শিশু রোমান মিয়া ওই এলাকার আমিনুর হকের ছেলে। মরদেহ উদ্ধারের একদিন আগে গত ২৯মার্চ ইফতারের কিছুক্ষন পূর্বে ত্রিমোহনী বাজার থেকে নিখোঁজ হয় শিশু রোমান। ওই দিন বিভিন্ন স্থানে খোজাখুজি করেও তাকে না পেয়ে মাইকিং করে পরিবারের লোকজন। পরদিন শনিবার বিকেলে সেতুবাজার এলাকার একটি তামাক ক্ষেতে কিছু লোক কাজ করতে গেলে সেখানে শরীরের অর্ধেক পুতে রাখা একটি মরদেহ দেখতে পায়। পরে পুলিশকে খবর দিলে মরদেহ উদ্ধার করে আদিতমারী থানা পুলিশ। এলাকার লোকজন নিশ্চিত করে মরদেহটি নিখোঁজ শিশু রোমানের।

সংবাদ ব্রিফিংয়ে উপস্থিত আদিতমারী থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ ওসি মাহমুদ-উন-নবী বলেন, আদালতের নির্দেশে আশিককে যশোর কিশোর সংশোধনাগারে খুব দ্রুততার সহিত পাঠানোর কাজ শুরু করেছি ।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।