চট্টগ্রামশনিবার , ২০ এপ্রিল ২০২৪
  1. অগ্নিকাণ্ড
  2. অপরাধ
  3. অপহরণ
  4. অর্থনীতি
  5. আইন বিচার
  6. আতঙ্ক
  7. আত্মহত্যা
  8. আন্তর্জাতিক
  9. আবহাওয়া বার্তা
  10. ঈদুল আযহা উদযাপন
  11. ঈদুল ফিতর উদযাপন
  12. উচ্ছেদ
  13. উন্নয়ন
  14. কক্সবাজার
  15. কৃষি
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কক্সবাজার টেকনাফ র‌্যাবের হাতে পৃথক অভিযানে সাজাপ্রাপ্ত/ওয়ারেন্টভুক্ত ৬ জন আসামী আটক।

deshbarta news
এপ্রিল ২০, ২০২৪ ১২:৩৪ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

কক্সবাজার টেকনাফ র‌্যাবের হাতে পৃথক অভিযানে সাজাপ্রাপ্ত/ওয়ারেন্টভুক্ত ৬ জন
আসামী আটক।

জামাল উদ্দীন -কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি
কক্সবাজার টেকনাফ র‌্যাব-১৫ অভিযান
পরিচালনা করে উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পরকীয়ার জের ধরে স্বামী হত্যার চাঞ্চল্যকর মামলার অভিযুক্ত এজাহারনামীয় স্ত্রী ও তার কথিত প্রেমিক ০১নং এজাহারনামীয় আসামী
কক্সবাজার পৌরসভার ঘুমগাছতলা ও লাইট হাউজ এবং টেকনাফ থানাধীন তেচ্ছি ব্রিজ ও নয়াপাড়া রেজিস্টার ক্যাম্প এলাকায় একাধিক অভিযান পরিচালনা করে সাজাপ্রাপ্ত/ওয়ারেন্টভুক্ত ৬ জন আসামী র‌্যাব-১৫ কর্তৃক গ্রেফতার

গত ০৫/০৪/২০২৪ তারিখ কক্সবাজারের উখিয়ায় পারিবারিক কলহের জেরে পরকিয়া প্রেমিকসহ স্ত্রী আসমিদা বেগম পূর্ব পরিকল্পিতভাবে তার স্বামী সলিম’কে গুলি করে এবং ঘটনার পরদিন ০৬/০৪/২০২৪ তারিখ সকাল ০৬.৩০ ঘটিকায় ভিকটিম সলিম চট্টগ্রাম মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। এ ঘটনায় ভিকটিমের পিতা মীর আহমদ বাদী হয়ে উখিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন, যার মামলা নং-১৫, তারিখ-০৮/০৪/২০২৪, ধারা-৩০২/৩৪ পেনাল কোড। ঘটনার দিন থেকেই উক্ত হত্যাকান্ডে জড়িত নিহতের স্ত্রী ও তার পরকীয়া প্রেমিককে গ্রেপ্তারের লক্ষ্যে র‍্যাব-১৫ সচেষ্ট ভূমিকা পালন করে আসছিল। অবশেষে গত ১৮/০৪/২০২৪ তারিখ অনুমান সকাল ০৭.০০ ঘটিকায় র‍্যাবের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় গোয়েন্দা নজরদারির মাধ্যমে সিপিসি-১ টেকনাফ ক্যাম্পের চৌকস আভিযানিক দল উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পরকীয়ার জের ধরে স্বামী হত্যার চাঞ্চল্যকর মামলার এজাহারনামীয় ১নং আসামি কথিত প্রেমিক নজির হোসেন বাহাদুর প্রকাশ বাহাদুল্লাহ (২৩), পিতা-মোঃ সিদ্দিক এবং এজাহারনামীয় ২নং আসামি ভিকটিমের স্ত্রী আসমিদা বেগম (৩০), পিতা-সোনা মিয়া, উভয়ের ঠিকানা- এফডিএমএন ক্যাম্প-১৬, উখিয়া, কক্সবাজারদ্বয়’কে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ এলাকা থেকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয় হত্যাকান্ডে নিজেদের জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। জিজ্ঞাসাবাদ ও অনুসন্ধানে জানা যায়, ভিকটিম মৃত সলিম (৩২) ও আসমিদা বেগম (৩০) সম্পর্কে স্বামী-স্ত্রী। তারা দুজনেই মায়ানমারের নাগরিক। বিগত ১২ বছর পূর্বে তারা দু’জন বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। তাদের ঘরে দুটি পুত্র সন্তান রয়েছে। কাজের সূত্রে ভিকটিম মৃত সলিম প্রায়ই বাইরে থাকতো। এই সুযোগে তার স্ত্রী আসমিদা বেগম তার পরকিয়া প্রেমিক নজির হোসেন বাহাদুর প্রকাশ বাহাদুল্লার সাথে অনৈতিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি ভিকটিম মৃত সলিমের নজরে এলে সে স্ত্রীর সাথে প্রতিবাদ করায় তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহ ও ঝামেলার সৃষ্টি হয়। তখন থেকেই ভিকটিমের স্ত্রী তার পরকীয়া প্রেমিকের সহযোগিতায় ভিকটিমকে হত্যা করার পরিকল্পনা করতে থাকে। ঘটনার দিন অর্থাৎ ০৫/০৪/২০২৪ তারিখ দুপুর অনুমান ১২.০০ ঘটিকার সময় পূর্ব পরিকল্পনা অনুসারে ভিকটিমের স্ত্রীর কথিত প্রেমিক নজির হোসেন বাহাদুর তার সঙ্গে থাকা আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে ভিকটিমের পেটের ডান পাশের নিচের অংশে গুলি করে। এই কাজে ভিকটিমের স্ত্রী তার প্রেমিককে সর্বাত্মক সহযোগিতা করে। পরবর্তীতে ভিকটিমকে প্রথমে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করে। ঘটনার পরদিন ০৬/০৪/২০২৪ তারিখ সকাল ০৬.৩০ ঘটিকায় ভিকটিম চট্টগ্রাম মেডিকেলে মৃত্যুবরণ করেন।

এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৮ এপ্রিল ২০২৪ তারিখ র‌্যাব-১৫, কক্সবাজার এর একাধিক আভিযানিক দল কক্সবাজার পৌরসভার গুমগাছতলা ও লাইট হাউজ এবং টেকনাফ থানাধীন তেচ্ছি ব্রিজ ও নয়াপাড়া রেজিস্টার ক্যাম্প এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে দীর্ঘ দিন ধরে পলাতক, সাজাপ্রাপ্ত এবং গ্রেফতারী পরোয়ানাভুক্ত চারজন আসামীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। গ্রেফতারকৃত রশিদ আহমদ’কে কক্সবাজার পৌরসভার ঘুমগাছতলা, মোঃ আব্দুল হাফেজ’কে কক্সবাজার পৌরসভার লাইট হাউজ এলাকা, জসিম উদ্দিনকে টেকনাফ থানাধীন তেচ্ছিব্রীজ বাজার এলাকা এবং রোজিনা আক্তার প্রকাশ আয়েশা’কে যৌথ অভিযান পরিচালনা করে কর্তৃক নয়াপাড়া রেজিস্টার ক্যাম্প এলাকা থেকে আটক করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিস্তারিত পরিচয় :
১) রশিদ আহমদ (৫০), পিতা-অহিদুজ্জামান, সাং-সমিতিপাড়া বাজারের পাশে, কক্সবাজার সদর, কক্সবাজার। সে দীর্ঘদিন ধরে পলাতক এবং ০১ বছরের সশ্রম কারাদন্ডপ্রাপ্ত আসামী।
২) মোঃ আব্দুল হাফেজ (৩০), পিতা-হাজী মহসিন আলী প্রকাশ বড় হাজী, সাং-পাহাড়তলী রহমানীয় মাদ্রাসার দক্ষিণ পার্শ্বে, কক্সবাজার সদর, কক্সবাজার। সে মাদক মামলায় ১ বছর সশ্রম কারাদন্ড ও ০৫ হাজার টাকা অর্থদন্ডপ্রাপ্ত  দীর্ঘদিনের পলাতক আসামী।
৩) জসিম উদ্দিন (২৫), পিতা-ছপর মিয়া, সাং-হোয়াইক্যং (কাটাখালী), থানা-টেকনাফ, জেলা-কক্সবাজার। গ্রেফতারকৃত জসিম মাদক মামলায় ০৩ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামী।
৪) রোজিনা আক্তার প্রকাশ আয়েশা (২৮), স্বামী-মোঃ আরিফ, সাং-লেদা শরণার্থী ক্যাম্প, টেকনাফ, কক্সবাজার।  গ্রেফতারকৃত রোজিনা একজন রোহিঙ্গা নাগরিক। সে মাদক মামলায় ০১ বছর সাজা ও ২০০০ টাকা অর্থদন্ডপ্রাপ্ত আসামী।
গ্রেফতারকৃত আসামীদের সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।