চট্টগ্রামমঙ্গলবার , ৭ মে ২০২৪
  1. অগ্নিকাণ্ড
  2. অজ্ঞাত
  3. অনশন
  4. অন্যরকম
  5. অপমৃত্য
  6. অপরাধ
  7. অপহরণ
  8. অবৈধ
  9. অভিনন্দন
  10. অর্থনীতি
  11. অসহায় দরিদ্র
  12. আইন বিচার
  13. আইন শৃঙ্খলা
  14. আতঙ্ক
  15. আত্মহত্যা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নাটোর ০৪ আসনের সংসদ সদস্যের নাম ভাঙ্গিয়ে চলছে পুকুর সংস্কারের নামে মাটি বিক্রির মহাৎসব

deshbarta news
মে ৭, ২০২৪ ৫:০২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নাটোর ০৪ আসনের সংসদ সদস্যের নাম ভাঙ্গিয়ে চলছে পুকুর সংস্কারের নামে মাটি বিক্রির মহাৎসব।

নাটোর প্রতিনিধিঃ

নাটোরের বাড়াইগ্রাম  উপজেলায় রাতের আধারে চলছে পুরাতন পুকুর সংস্কারের নামে অবৈধ ভাবে মাটি বিক্রির মহোৎসব । রাত ১২ টার পর সাধারণ মানুষ যখন গভীর নিদ্রায় আচ্ছন্ন সেই সময় তারা সুযোগ টি কাজে লাগিয়ে প্রায় পুকুর খননে ব্যস্ত হয়ে পড়ছে।  প্রশাসনের চোখকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে বর্তমানে সুকৌশলে পুকুর খনন চালিয়ে যাচ্ছে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী । অনুসন্ধানে জানা যায়, ২ টি পৌরসভা এবং সাতটি ইউনিয়নের চিত্র প্রায় একই,
৫ নং মাঝগাঁও  ইউনিয়নের পূর্ব পাশে রাতের অন্ধকারে চলছে অবৈধ ভাবে পুকুর খননের কাজ চলমান, ১২ টি দানব আকৃতির ট্রাক্টর ব্যবহার করে বনপাড় হাঁটিকুমরুল মহাসড়কের ওপর দিয়ে চলছে মাটি বহন,এ বিষয়ে বনপাড়া হাইওয়ে পুলিশকে জানালেও মেলে না কোন ব্যবস্থা। ঠিকাদার মোঃ নাহিদ (৩৫) মিলন ( ২৮) আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কালাম আজাদ (৫৪) রাতের অন্ধকারে অবৈধ ভাবে চালাচ্ছে পুকুর খননের কাজ করে চলেছেন অবিরাম,সেখানে তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে সাংবাদিকদের উপর রাগান্বিত হন সংশ্লিষ্টরা এমনকি তারা জানান মাননীয় এমপি মহোদয়ের পয়েন্ট আপনাকে ভিডিও করার অনুমতি কে দিয়েছে।
মাঝগাঁও উত্তরপাড়া হাইস্কুলের পাশে সংস্কারের নামে মাননীয় সংসদ সদস্যের ভাগ্নে চালাচ্ছে জহির (২৯) পুকুর খনন ও মাটি বিক্রি। (বর্তমানে সেটা কয়েকদিনের জন্য বন্ধ আবারো শুরু হবে এ সপ্তাহে)
নগর ইউনিয়নে পাঁচবাড়িয়া মহেশ্বরপুর এমপি সাহেবের ঘনিষ্ঠ বনপাড়া পৌর যুবলীগের সভাপতি জাকির সরকারের স্নেহাশীষ পিয়ারুল, শহিদুল এর নেতৃত্বে পুকুর খানন চলছে। সাহেব বাজার হয়ে নিতাই নগর থানাইখাড়াই এমপি মহোদয়ের স্নেহাশীষ মাঝগাঁও ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়াজেদের নেতৃত্বে চলছে পুকুর খনন মাটি বিক্রি। ধানাইদহ ফিলিং স্টেশন পার হয়ে পুকুরের ভেতরে যে হোটেল আছে, সেই পুকুরটি অনুমোদন বিহীন, সেখানে মাটি কর্তন করে সেই মাটি ৯০০টাকা দরে ভাটায় যাচ্ছে।
চান্দাই ইউনিয়নের কৃষ্ণপুর গ্রাম সাহেব বাজার হইতে কৃষ্ণপুরের দূরত্ব এক কিলোমিটার, কৃষ্ণপুরে ঠিকাদার সোহেলের নেতৃত্বে চলছে রমরমা মাটি ব্যবসা, সাম্প্রতিক দুইটি পুকুরের কাজ শেষ করে আরেকটি পুকুরে খনন কাজ শুরু করেছে বলে জানা যায়।কৃষ্ণপুরে আরও একজন ঠিকাদার নগর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মিঠুর নেতৃত্বে অবৈধ পুকুর খনন দুই দিনের জন্য বন্ধ আছে পরবর্তীতে আবারো তা চালু হবে বলে স্থানীয় সূত্রে জানা যায়। চান্দাই গ্রামের ওয়াদুদ সরকারের নেতৃত্বে চলছে পুকুর সংস্কার, ১৯ টি গাড়ির মেলা বসে আছে, যা সারারাত মাটি বহন করে।
গোপালপুর ইউনিয়নে গড়মাটি গ্রামে ইউপি সদস্য কালামের নেতৃত্বে চলছে ৩ ফসলি জমিতে পুকুর খনন যা এখনো চলমান, উপজেলা প্রশাসন ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করলেও, তা এখন দফারফা হয়ে চলমান, এলাকাবাসীর সূত্রে জানা যায়। দাসগ্রাম আকবর মোড়ে সংস্কারের নামে নাটক সাজিয়ে ১২বিঘা ফসলি জমিতে পুকুর খনন, যার নৈপথে আছে মাননীয় সংসদ সদস্যের স্নেহাশীষ আনোয়ার পাটোয়ারী।রাজাপুর নারায়ণ পুর তেল পাম্পের সামনে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের নাতি এমপি মহোদয়ের স্নেহাশীষ জনির নেতৃত্বে চলছে পুকুর খনন।
জোনাইল ইউনিয়নে রানীবাজার এলাকায় ১৪ বিঘা পুকুরের সাথে, তিন বিঘার সরজমিন যুক্ত করে সংস্কারের নামে চলছে মাটি বিক্রির মহাৎসব।
উল্লেখ্য থাকে যে এই মাটির পয়েন্টের মালিকের বক্তব্য এই ছিল, ইউ এন ও এসি ল্যান্ড আমার পয়েন্ট আসবে না টাকা দিয়ে মুখ বন্ধ করে রেখেছি,যার ভিডিও ধারণ করে উপজেলা প্রশাসনকে দেওয়া হয় তারপরও কোন ব্যবস্থা গ্রহণ হয়নি।
ঠিকাদার মিসকিন, মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সহকারী পরিচয় দেওয়া মনির এর নেতৃত্বে চলছে এই পুকুর খনন।
বড়াইগ্রাম ইউনিয়নের রামেশ্বরপুর এমপি মহোদয়ের খুবই কাছের মানুষ, টি এম মাসুদ করিম বাকির নেতৃত্বে চলছে পুকুর খনন। বড়াই গ্রামের ইউনিয়নের আদগ্রাম তিন ফসলের জমিতে পুকুর খনন হচ্ছে হারহামশাই, ঠিকাদার বাবু, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা সজীব আহমেদ সুজাব মির্জা র নেতৃত্বে চলছে পুকুর খনন ও মাটি বিক্রি।
এছাড়াও বড়াইগ্রাম ইউনিয়নের তরমুজ পাম্প এলাকায় মাননীয় সংসদ সদস্যের বিশ্বস্ত কর্মী ঠিকাদার হাবিবের নেতৃত্বে চলছে পুকুর খনন ও মহাসড়ক দিয়ে মাটি বিক্রির রমরমা আয়োজন।
মাননীয় সংসদ সদস্যের নিজ গ্রাম ভবানীপুর ও চন্ডিপুর, ফসলি জমিতে পুকুর খনন যার পরিমাণ আনুমানিক ২৩ বিঘা, ইটভাটায় বিক্রি হয়েছে, উল্লেখ থাকে যে এই পয়েন্টের মাটি একমাত্র দিনের বেলায় কাটা হয়,তবুও প্রশাসনের টনক নড়েনি।
স্থানীয়দের অভিযোগ, রাতের বেলায় খেয়ে যখন ঘুমাতে যাবো তখন শুরু হয় রাস্তায় গাড়ীর বিকট শব্দ। হঠাৎই ঘুম ভেঙে যায়।আর চলাচলের একমাত্র রাস্তা পুকুর খননের কারনে মরন ফাঁদে পরিনত হয়েছে। রাস্তায় মাটি পড়ে থাকায় একটু বৃষ্টিতে তা কাদার সৃষ্টি হবে, প্রশাসনকে অবহিত করলেও হচ্ছে না প্রতিকার। এর ফলে সড়কে ঘটতে পারে নানা দুর্ঘটনা গ্রামের মানুষের জীবন যাপন হচ্ছে বিঘ্নিত ।
রাস্তা দিয়ে ট্রাক্টরে করে মাটি পরিবহনের ফলে মাটি ছিটকে পড়ছে রাস্তায়। তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাওয়ায় ওই মাটিগুলো ধুলাবালিতে পরিনত হচ্ছে। মাটি নিয়ে বারবার ট্রাক্টর চলাচলের কারনে ওই রাস্তায় ধুলাবালিতে পরিপূর্ণ হয়ে যাচ্ছে, তাছাড়া ভেঙ্গে যাচ্ছে রাস্তা। দূরত্ব অনুযায়ী ১০০০-১২০০ টাকায় দরে বিক্রয় হচ্ছে প্রতি ট্রাক্টর মাটি।
মাটি বিক্রয়ে লাভবান হওয়ার কারনে বিভিন্ন মহল দফারফা করে মাটি বিক্রয় করে চলেছেন প্রভাবশালী মহল।মাটি ব্যবসায়ীরা প্রভাবশালী হওয়ার কারনে সাধারণ লোকজন তাদের বিরুদ্ধে কথা বলার সাহস পাচ্ছেন না। অবৈধ ভাবে মাটি বিক্রয় করার কারনে রাস্তা দিয়ে চলাচল অনেক কষ্টকর হয়ে পড়েছে। এলাকাবাসীর চলাচলের সুবিধার্থে দ্রুত পুকুরের মাটি বিক্রয় বন্ধ করতে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন এলাকার সচেতন মহল ।
অন্যদিকে পুকুর মালিক বা বিভিন্ন ঠিকাদার পক্ষের লোকজন জানান , আমি প্রশাসনের নিকট থেকে পুকুর সংস্কারের অনুমতি নিয়েছি,মাননীয় সংসদ সদস্য জানে বিষয়টি আমরা তাকে জানিয়ে এই কাজ করছি, সংস্কারের নামে মাটি বিক্রয় করছেন কেন এমন প্রশ্নের কোন উত্তর দিতে পারেননি, জোরপূর্বক রাস্তা নষ্ট করে মাটি বিক্রয় কারী কূচক্রী মহল।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার লায়লা জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, রাস্তা নষ্ট করে মাটি বিক্রয় করার কোন সুযোগ নেই,বিষয়টি উপজেলা প্রশাসন গুরুত্বসহকারে দেখছে এবং নিয়মিত ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। আসলে সরেজমিনে তার কোন প্রতিকার মেলেনি।
মাননীয় সংসদ সদস্যের নাম ভাঙ্গানোর বিষয়টি সংসদ সদস্য আলহাজ্ব ডাঃ সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী কে জানালে তিনি বলেন বড়াইগ্রামের তিন ফসলি জমি (মা ও মাটিকে রক্ষার দায়িত্ব আমার) জমি রক্ষা করার জন্য আমি সর্বদা কাজ করে যাচ্ছি, সংস্কারের বিষয়ে তিনি মন্তব্য করেন, সংস্কারের মধ্য দিয়ে অনাবাদি জলাশয়ে মাছ চাষের জন্য উপযোগী করা যায় সেটা উপজেলা প্রশাসন সরজমিনের তদন্ত করে অনুমোদন দিলে তবে! কিন্তু সেই সংস্কারের মাটি সরকারি রাস্তা দিয়ে বহন করে বিক্রির বিরুদ্ধে কড়া হুঁশিয়ারি দেন এই সংসদ সদস্য।

ওমর ফারুক খান
নাটোর প্রতিনিধিঃ
০১৭৬২৯৪৯৫২৬
০৭/০৫/২৪ ইং

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।