চট্টগ্রামসোমবার , ১০ জুন ২০২৪
  1. অগ্নিকাণ্ড
  2. অজ্ঞাত
  3. অনশন
  4. অন্যরকম
  5. অপমৃত্য
  6. অপরাধ
  7. অপহরণ
  8. অবৈধ
  9. অভিনন্দন
  10. অর্থনীতি
  11. অসহায় দরিদ্র
  12. আইন বিচার
  13. আইন শৃঙ্খলা
  14. আতঙ্ক
  15. আত্মহত্যা
আজকের সর্বশেষ সবখবর

জয়পুরহাট জেলাই এবার কোরবানীর জন্য ৩ লক্ষাধিক পশু কোরবানীর জন্য প্রস্তুত

মো: মোয়ান্নাফ হোসেন শিমুল/ জয়পুরহাটঃ
জুন ১০, ২০২৪ ১:২৪ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

জয়পুরহাট জেলাই এবার কোরবানীর জন্য ৩ লক্ষাধিক পশু কোরবানীর জন্য প্রস্তুত

জয়পুরহাট জেলাই এবার কোরবানীর জন্য তিন লক্ষাধিক প্রাণী কোরবানীর জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে। দেশীয় প্রাকৃতিকভাবে খাবার খাওয়ায়ে লালন পালন করেছেন খামারীরা। ইতিমধ্যে বিভিন্ন হাট বাজারেও তুলেছেন এসব প্রানীগুলোকে। তবে বিদেশী প্রাণী বাজাওে উঠা নিয়ে শংকা প্রকাশ করেছেন এসব খামারীরা

জেলায় এবার কুরবানির জন্য চাহিদা রয়েছে প্রায় ১ লাখ ৬৬ হাজার ৩৮৫ টি পশু। কিন্তু জেলায় এবার কুরবানি যোগ্য উৎপাদিত পশু প্রস্তুত করা হয়েছে ৩ লাখ ৯ হাজার ২৭১ টি যা প্রয়োজনের তুলনায় ১ লাখ ৪২ হাজার ৮৮৬ টি বেশি। জেলার ৫ উপজেলার ছোট-বড় প্রায় ১২ হাজার ২২৮টি খামারিরা এসব কুরবানির গরু প্রাকৃতিকভাবে পালন করেছে। এর মধ্যে তালিকা ভুক্ত খামার রয়েছে সাড়ে ৩ হাজার। এসব প্রানীকে দেশীয় খাবার দিয়ে লালন পালন করেছেন খামারীরা।

জয়পুরহাটে সদর উপজেলার নতুনহাট এলাকার বিষিষ্ট ঠিকাদার মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান (মিলন) বলেন আমি একটা গরুটা কিনেছিলাম শখের বসে, লালন পালন করার জন্য নিজস্ব জায়গায় আমার গরুটার রেখে দেশীয় খাবার খেয়ে বড় করছি জাস্ট এটা আমার শখ । এবং ন্যাচারাল ভাবে ন্যাচারাল খাবার খেয়ে তাকে আমি বড় করেছি আর এখন গরুটির ওজন হয়েছে ৩০মনের বেশি ঈদ বড় মৌসুম গরুর মারকেটে চাহিদা আছে বাট এত বড় গরু আশে পাশে যে হাটগুলা রয়েছে যে হাট গুলোতে নিয়ে যাওয়া অনেক কষ্টকর এই কারণে আপনাদের কাছে চাওয়া ক্রেতারা আমার নাম্বারে ০১৭৩৫১৬৮৯৬৫ ,যোগাযোগ করলে আমার হ্যাজ কিং প্রাইস দশ লক্ষ টাকা আপনারা যারা নিতে চান আলোচনা সাপেক্ষে দামদর করা যাবে

জয়পুরহাটে আক্কেলপুর উপজেলার কানুপুর ডেইলি ফার্ম গ্রামের বাঁধন হোসেন বলেন এবার ঈদে দামটা মনে হয় একটু বেশিই থাকবে। গত ঈদে যে গরু চার লাখে বিক্রি হয়েছে, এটা কিনতে এবার ২০ থেকে ৩০ হাজার টাকা বেশি লাগবে। তবে, শেষ সময়ে দামটা আবার কমেও যেতে পারে। যদি শেষ সময়ে ভারত থেকে গরু আসা শুরু করে, তাহলে হয়তো দাম অস্বাভাবিক কমে যাবে। সেরকম কিছু হলে দেশি ব্যবসায়ীরা লোকসানে পড়ে যেতে পারেন

গরুর খাবারের দাম এক বছর আগের তুলনায় অনেক বেড়ে গেছে। এই খামারে আমাদের গরু আছে ৫৪টা। সেগুলোর জন্য চার দিনের খাবার আমরা মিক্সড করেছি, যার খরচ প্রায় এক লাখ টাকা। কাঁচা ঘাস, ধানের কুড়া, দুই জাতের ভুসি, ছোলা ও মশুরিসহ বিভিন্ন ধরনের খাবারের মিশ্রণ থাকে এখানে।

জেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর অফিসার মহির উদ্দিন বলেছেন এবার জেলায় নিবন্ধিত ও অনিবন্ধিত মোট ছোট-বড় প্রায় ১২ হাজার ২২৮টি খামারিরা প্রাকৃতি ও নিরাপদ পদ্ধিতে গরু পালন করেছে। খামারিরা কোন রকম রাসায়নিক প্রক্রিয়া ছাড়াই প্রাকৃতিক উপায়ে জেলা প্রাণিসম্পদ অফিস প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও চিকিৎসা নিয়ে পশু প্রতি-পালন করছে। খামারিরা প্রাকৃতিক ভেজাল মুক্ত পশু পালন করায় তাদের দাম ও ভাল পাওয়ার আশা করছে।

খামারিরা প্রাকৃতিক ভেজাল মুক্ত পশু পালন করায় তাদের দাম ও ভাল পাওয়ার আশা করছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।